Thursday, May 5, 2016

Bagan beat Salgaocar, move into fed cup semis | The Telegraph

A rampant Mohun Bagan side thrashed Salgaocar 4-0 to book a place in the semi-finals of the Federation Cup football tournament here on Thursday.
Haitian forward Sony Norde (45+1, 52nd minutes) scored a brace while Katsumi Yusa (25th) and Jeje Lalpekhlua (90+4) netted the others for Bagan at the Barasat stadium.
In the first leg in Goa, the Mariners had won 3-2, thus they go through to the last four 7-2 on aggregate.
Bagan looked from the outset threatened with Jeje's shot being saved off the goalline in the third minute of the game. The pressure continued and the hosts had their second chance a few minutes later but this time too Jeje's terrific bicycle kick flew past the post after taking a deflection of rival defender Eder Monteiro.

Bagan ease into last four - Telegraph

A staff reporter
Sony Norde scores Mohun Bagan’s second goal on Friday. A Telegraph picture
Calcutta: Bengaluru FC and East Bengal have bowed out, but Mohun Bagan marched on to the Federation Cup semi-finals.
Bagan thrashed Salgaocar FC 4-0 on Thursday at the Barasat Stadium to win 7-2 on aggregate and set up a clash against Lajong FC in the last-four stage.

ভিসা সমস্যা মেটাতে হায়দরাবাদে গেলেন ব্রিটিশ কোচ*শনিবার রাতে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন | বর্তমান

ভিসা সমস্যা মেটাতে হায়দরাবাদে গেলেন ব্রিটিশ কোচ*শনিবার রাতে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন

 কেরল ব্লাস্টার্স থেকে লিয়েনে ইস্ট বেঙ্গলে এসেছেন ট্রেভর জেমস মরগ্যান। আই এস এলের টিমের সঙ্গে ৩১ মে পর্যন্ত চুক্তি রয়েছে ব্রিটিশ কোচের। বুধবার লাজংয়ের সঙ্গে ড্র করেও গোলের গড়ে ফেডারেশন কাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পরেও আগামী মরশুমে মরগ্যানই কোচ হিসেবে চূড়ান্ত হতে চলেছে ইস্ট বেঙ্গলে। বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য পদত্যাগ করার আগে ও পরে ইস্ট বেঙ্গল জনতার দাবিতে যখনই মরগ্যানের নাম কোচ হিসেবে উঠেছে, তখন বাধ সেধেছেন ইস্ট বেঙ্গল সচিব। তাঁর যুক্তি একেবারেই ফেলে দেওয়ার নয়। লাল-হলুদ সচিবের মতে, মরগ্যানের অতীত পারফরম্যান্স আহামরি নয়। ইস্ট বেঙ্গলে কোচ থাকাকালীন বিগত তিন বছরে একবারও আই লিগ দিতে পারেননি মরগ্যান। আই এস এলে কেরল ব্লাস্টার্স ও ডেম্পোর কোচ হিসেবেও ফ্লপ। তাহলে কেন আবার মরগ্যান?

সনি-ঝড়ে সহজেই ফেড কাপের শেষ চারে মোহন বাগান | বর্তমান

মোহন বাগান-৪                                সালগাওকর-০
(কাটসুমি, সনি-২, জেজে)
ম্যাচ শুরুর আগে ওয়ার্ম-আপ চলছে মোহন বাগানের। গার্সিয়ার তত্ত্বাবধানে গা ঘামাচ্ছেন জেজে-বিক্রমজিৎরা। রয়েছেন সনিও। মাঠের অন্য প্রান্তে সালগাওকর কোচ মারিও সোরেসও শেষ মুহূর্তের পরামর্শ দিতে ব্যস্ত। এমন সময় করণজিতের হাই কিক উড়ে এল বাগান ফুটবলারদের দিকে। পাশে দাঁড়ানো আজহারউদ্দিনকে সরিয়ে দুরন্ত রিসিভে বল নিয়ন্ত্রণে আনলেন সনি। ঠিক যেমন সাপিনীকে পোষ মানায় ওঝা। তারপর শুরু হল জাগলিং। এক, দুই, তিন, চার…. থামছে আর না। গ্যালারিতে হাজির সবুজ-মেরুন সমর্থকদের হাততালিরও যেন বিরাম নেই। কিছুক্ষণ বল নাচানোর পর লম্বা শট সনির। যা আশ্রয় নিল করণজিতের হাতে।
ওয়ার্ম-আপের মতো ৯০ মিনিটও মাতালেন মোহন বাগানের হাইতিয়ান তারকা। প্রায় একাই দুমড়ে মুচড়ে দিলেন সালগাওকরকে। গ্যালারিতে আপশোস, ‘সনি চোট না পেলে আই লিগ আমরাই জিততাম। ’

২২ জন ফুটবলারের সঙ্গে দু’বছরের চুক্তি করেই বিপাকে লাল-হলুদ! । বর্তমান

ফেডারেশন কাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পরই ইস্ট বেঙ্গল কোচ বলেছিলেন, দলের খোলনলচে বদলাতে হবে। বেশ কয়েকজন ফুটবলারকে বাতিল করতে হবে। কিন্তু দলের ২২ জন ফুটবলারের সঙ্গে দু’বছরের চুক্তি করে ইস্ট বেঙ্গল কর্তারা দলের সর্বনাশ করে ফেলেছেন! যেখানে ‘পেনশনার’ ফুটবলারদের সংখ্যাই বেশি। কর্তাদের উদ্দেশ্যপ্রণোদিত কর্মকাণ্ডে আগামী বছরও লাল-হলুদ জনতা সর্বভারতীয় ট্রফি জয় থেকে বঞ্চিত হতে পারেন।

ফেডারেশন কাপে বাংলার মুখ রাখছে মোহনবাগান | আনন্দবাজার

মোহনবাগান ৪ (কাটসুমি, সনি-২, জেজে)
সালগাওকর ০
প্রথম লেগের ম্যাচের ফল: মোহনবাগান ৩-২ সালগাওকর
জেজের বল গোল লাইন সেভ হওয়া দিয়ে বারাসতে শুরু হয়েছিল ফেডারেশন কাপের মোহনবাগান-সালগাওকর ম্যাচ। শেষ হল সেই জেজের গোলেই। যে জেজের গোলে প্রথম লেগের ম্যাচে গোয়ার মাটিতে সাগাওকরকে হারিয়েছিল মোহনবাগান সেই জেজেই এদিন দলের পাশে চতুর্থ গোলটি লিখে ফেললেন।

ডং ছাড়া সব বিদেশি বাদ | আজকাল

লাল–‌হলুদের মরশুম আপাতত শেষ। লোবোর মতো ভিন রাজ্যের ফুটবলাররা কেউ কেউ আগেই পা বাড়িয়েছেন ঘরে চোট থাকায়। এমন হতশ্রী পারফরমেন্সের পর বাকিরা শেষ মাসের মাইনে পাওয়ার আশায় বসে থাকবেন কিনা সন্দেহ। তবে একবার কলকাতা ছাড়লে বকেয়া মাইনে পাওয়া যে কঠিন হবে সেটা বিলক্ষণ বুঝছেন। কারণ ইস্টবেঙ্গল সচিব কল্যাণ মজুমদার তো বলেই দিয়েছিলেন, নিয়মিত মাইনে পেয়ে পেয়ে এরা এত নিশ্চিন্ত যে পারফর্ম করতেই ভুলেছে।

৪ ফুলের মালা, মাতোয়ারা বাগান | আজকাল

মোহনবাগান–৪ (কাৎসুমি, সনি ২, জেজে) সালগাঁওকার–০
 সৌমিত্র কুমার রায়: এক্সপ্রেসের দৌড় আর বোমার বিস্ফোরণ, তাতেই উড়ে গেল সালগাঁওকার। ‘হাইতিয়ান এক্সপ্রেস’ সনি নর্ডি ও ‘জাপানি বোমা’ কাৎসুিম উসা— বাগানের এই জোড়া ফলায় ভর করে বৃহস্পতিবার সালগাঁওকারকে ৪–০ হারিয়ে ফেড কাপের শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত করে ফেলল মোহনবাগান।